খাগড়াছড়িতে বলাৎকারের অভিযোগে শিক্ষকের যাবজ্জীবন

খাগড়াছড়িতে দশ বছরের এক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক নোমান মিয়া ওরফে রোমানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একইসাথে ভিকটিমের পরিবারকে ৩০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বুধবার দুপুরে খাগড়াছড়ি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু তাহের এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত নোমান মিয়া ওরফে রোমান দীঘিনালা উপজেলার ছোট মেরুং এরাকার মো. আলী মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, ২০১৭ সালে জেলার দীঘিনালা উপজেলার ছোট মেরুং আল ইকরা হিফজুল কোরআন মাদ্রাসার শিক্ষক নোমান মিয়া ওরফে রোমান একই মাদ্রাসার দশ বছরের এক ছাত্রকে বলাৎকার করে। এই ঘটনায় ভিকটিমের পরিবার বাদী হয়ে একই বছরের ২৩ আগস্ট দীঘিনালা থানায় মামলা দায়ের করে।

মামলা দায়েরের পর ২০১৮ সালের ২২ মে চার্জ গঠন করা হয়। মামলা চলাকালীন ১২ জনের সাক্ষ্য প্রদান, যুক্তি তর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত এ রায় প্রদান করেন৷ আসামীকে সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি ভিকটিমের পরিবারকে ৩০ লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট বিধান কানুনগো এ রায়ের সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।