গরিবদের জন্য কাজল কান্তি দাশ চালু করলেন অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর সেবা

বান্দরবানে দিন দিন বাড়ছে কভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা । সেই রোগীর চাপ সামলাতে হচ্ছে বান্দরবান স্বাস্থ্য বিভাগকে । করোনা রোগীদের মধ্যে অনেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন বাসায় । অনেক সময় দেখা দিচ্ছে শ্বাসকষ্টজনিত প্রকট সমস্যা । আর এই সমস্যার কথা চিন্তা করে অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর সেবা চালু করলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ । ব্যক্তিগত উদ্যোগে কিনেছেন অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর। সমাজের খেটে খাওয়া মানুষই পাবেন এই সেবা ।

পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ জানান, বান্দরবানের দু:স্থ রোগীদের কথা চিন্তা করেই এ সেবা চালু করেছি । শুধুমাত্র পৌর এলাকায় এই সেবা চালু থাকবে । পরবর্তীতে অন্যান্য জায়গায়ও এ সেবা চালু করা হবে । দেশটা আমাদের সকলের । আমাদের প্রত্যেককে একে অপরের সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে হবে ।

কোন করোনা রোগী ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে মেয়র ও পৌর কমিশনারের সাথে যোগাযোগ করলে মিলবে কাজল বাবুর অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর । প্রয়োজন শেষে ওই মেশিনটি আবারও ফেরত দিতে হবে বলে জানান তিনি ।

এর আগে পুলিশ প্রশাসনকে দিয়েছেন অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর । শুধু কি তাই, করোনার শুরুতেই বান্দরবান পৌর শহরের সড়কগুলো জীবাণুমুক্ত করতে নিজ খরচেই প্রতিদিন ৪২ হাজার লিটার জীবাণুনাশক ছিঁটিয়েছেন কাজল কান্তি দাশ । এছাড়াও মশা নিধন করতে ফগার মেশিন দিয়ে করেছেন স্প্রে । করোনায় কর্মহীন গরিব অসহায় ৪শত পরিবারকে দিয়েছেন চাল, ডাল সহ বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী ।

এছাড়াও করোনার এ মহামারীতে যেখানে হোটেল মোটেল থেকে লোকশান এড়াতে কর্মী ছাঁটাই করছেন মালিকরা সেখানে ব্যতিক্রম কাজল বাবু । এ করোনাকালীন সময়ে কোন কর্মচারীকে তিনি কর্মহীন করেননি । দিচ্ছেন নির্দিষ্ট সময়ে বেতন আর বোনাস । এছাড়াও গরিব অসহায় শিক্ষার্থীদের জন্য অনেক আগেই চালু করেছেন শিক্ষা বৃত্তি ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।