থানচিতে পর্যটক গাইডের জন্য কঠোর নির্দেশনা !

বান্দরবানের থানচি উপজেলা বর্তমানে সারা দেশের পর্যটকদের কাছে বেশ আকর্ষণীয়। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ঘেঁরা সবুজ পাহাড়, বহমান সাঙ্গু নদীর স্বচ্ছল পানি ও নদীর মধ্যে বিশাল আকৃতির পাথর সহ অসংখ্য পর্যটন কেন্দ্র। তাই বছর জুড়েই প্রকৃতি প্রেমিরা ছুটে আসেন এই জনপদে। বিশেষ বিশেষ দিন গুলোতে পর্যটকদের উপচে পড়া ভীড় পরিলক্ষিত হয়।

এখানে পর্যটক সেবা ও নিরাপত্তায় পুলিশ, পর্যটক গাইড, বিজিবি, সর্বোপরি উপজেলা প্রশাসন নিরলস ভাবে দায়িত্ব পালন করেন। আসন্ন ঈদুল ফিতর এর ছুটিতে এবার ও পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠবে থানচি উপজেলা প্রশাসনের এমন টা প্রত্যাশা স্থানীয় পর্যটন সংশ্লিষ্ট সকলের।

এদিকে পার্বত্যাঞ্চল গুলো ভৌগলিক অবস্থান গত দিক থেকে সব সময়ই সমতল অঞ্চলের চেয়ে কিছুটা নিরাপত্তা ঝুঁকিতে থাকে। সেই সাথে স্থানীয় কিছু উগ্রপন্থী সংগঠনের অপতৎপরতার কারণে পর্যটকদের নিরাপত্তার বিষয়ে বেশকিছু প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করতে হয় সংশ্লিষ্টদের। ২৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার উপজেলা মাসিক সমন্বয় সভায় থানচি বিজিবি’র প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে থানচি তে ভ্রমনের আসা পর্যটকদের নিরপত্তার বিষয়টি কে বেশ গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় নিয়ে উপজেলা প্রশাসনের সম্মূখে পর্যটক ও পর্যটক গাইডদের জন্য কিছু দিক নির্দেশনা উপস্থাপন করেন।

বিজিবি উত্তাপিত বিষয়টি আমলে নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউল গনি ওসমানী বলেন, কোনো পর্যটক ঙাফাখুম সীমানা ওভারটেক করতে পারবে না। যদি কেউ সেটা করে, তাহলে সেই বিষয় টি সাথে সাথে গাইডদের কে বিজিবি কাছে অবহিত করতে হবে। অন্যথায় পর্যটক গাইডের নিবন্ধন বাতিল করার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবো। এছাড়াও কোনো পর্যটক যদি মাদক গ্রহণ করে তাহলেও বিষয়টি প্রশাসন কে জানাতে হবে এবং সর্বোপরি যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা না ফেলতে পর্যটকদের সতর্ক করবে পর্যটক গাইডেরা। সেই ক্ষেত্রে কোনো পর্যটক যদি তাদের কথা না শুনে তাহলে সেই বিষয়টি ও প্রশাসন কে জানাতে হবে। পরিবেশ ও প্রকৃতি রক্ষায় আগত পর্যটক গন সচেতন নাগরিকের পরিচয় দিবেন এমন টায় প্রত্যাশা করেন এই কর্মকর্তা।

উপজেলা প্রশাসনে আয়োজনে পরিষদ সভা কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতে বিগত মার্চ মাসের রেজুলেশন কার্য বিবরনী উপস্থাপন করেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউল গনি ওসমানী। পরে উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা গন তাদের এপ্রিল মাসের উন্নয়ন কার্মকান্ডে উপর কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত উপস্থাপন করে বক্তব্য দেন।

থানচি উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইহ্লা মং মারমা’র সভাপতিত্বে অনুষ্টিত ‘উপজেলা মাসিক সমন্বয় সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউল গনি ওসমানী,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান চসাথোয়াই মারমা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাহুল চন্দ্র, থানচি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুদ্বীপ রায়, বিজিবি প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম সহ অন্যান্য কর্মকর্তা গন উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।