নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ইয়াবা ডন যুবদল নেতা জকির ফের কারাগারে

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তের ইয়াবা ডন, জলপাইতলী-পশ্চিমকুলের ভাই-ভাই ইয়াবা সিন্ডিকেটের সেকেন্ড ইন কমান্ড ও ইউনিয়ন যুবদলের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক জকির আহমদ কে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বান্দরবানের এক বিচারিক আদালত। জকির আহমদ (৪০)ঘুমধুম ইউপির ১নং ওয়ার্ডের খিজারী ঘোনার ছৈয়দ আলমের ছেলে।

জানা যায়, বান্দরবান কোর্টে জিআর-২০২/১৭ মামলায় গত ২১ সালের ৩০ ডিসেম্বর ৩ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানার রায় ঘোষিত হয়েছিল জকির আহমদের বিরুদ্ধে। রায় ঘোষণার পর থেকে সে পলাতক ছিল।

আজ মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারী) সকাল বেলা উক্ত মামলায় আত্নসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে বান্দরবান জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের অতিরিক্ত চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদুল আলম শিকদার জামিন নামঞ্জুর করে জকির আহমদকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন, আসামী জকির আহমদের নিযুক্ত আইনজীবী শামসুল হক রনি।

প্রসঙ্গত, জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তের শীর্ষ ইয়াবা কারবারি গত বছরের ২৭ জুলাই রাতে মেরিন ড্রাইভ সড়কে বিপুল ইয়াবা নিয়ে আরোও ৪ সহযোগী ও নোয়া গাড়ীসহ র‍্যাব-১৫’র হাতে আটক হয়ে দীর্ঘদিন জেলে ছিল। গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর জামিনে বেরিয় আত্নগোপনে থেকে ইয়াবা পাচারে নেমে পড়ে ফের।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।