পাহাড়বার্তা’র ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে যা বললেন অতিথিরা

পার্বত্য চট্টগ্রামের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল পাহাড়বার্তা’র ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার (১অক্টোবর) সকালে বান্দরবান পৌরসভার হলরুমে এক আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় যা বললেন অতিথিরা

অর্থনৈতিক সীমাবদ্ধতার কারনে বান্দরবানসহ তিন পার্বত্য জেলায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল টিকিয়ে রাখা অনেক কঠিন। তারপরও এই কঠিন পথ চলার মাঝেও পাহাড়বার্তা ২ বছর পার করে ৩ বছরে পর্দাপন করেছে। আমাদের পাঠকরা আমাদের শক্তি,আমরা তাদের আলোচনা-সমালোচনা ও পরামর্শ নিয়ে পাহাড়বার্তা’কে এগিয়ে নিয়েছি নিরপেক্ষ, বস্তুনিষ্ঠ ও সত্যনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে। আমাদের আগামী দিনগুলোতে আমরা পাঠকের চাহিদা পূরনে নিত্যনতুন কর্ম পরিকল্পনা গ্রহন করে এগিয়ে যাবো।

এস বাসু দাশ
নির্বাহী সম্পাদক
পাহাড়বার্তা।

পাঠকের ভালোবাসা নিয়ে পাহাড়বার্তা’র এগিয়ে চলা। আমরা কারো পক্ষে বা বিপক্ষে নয়,আমরা নিরপক্ষ। আগামীর দিনগুলোতে আপনারা আমাদের সাথে থেকে পাহাড়বার্তাকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন, এই প্রত্যাশা করি। সরকার কর্তৃক অনলাইন পোর্টাল এর নিবন্ধন চূড়ন্ত হলে আগামীকে পাহাড়বার্তা আরো ভালো ভালো সংবাদ পরিবেশন করে অবস্থান তৈরী করার পাশাপাশি সামনে এগিয়ে যেতে চেষ্টা করবে।

সাদেক হোসেন চৌধুরী
সম্পাদক
পাহাড়বার্তা।

পাহাড়বার্তা’য় যারা আছেন তারা অনেক তরুণ, তাই তাদের চোখে প্রতিটা নিউজ খুব সহজেই পেয়ে থাকি। অনলাইন মানে হচ্ছে, তাৎক্ষনিক ঘটনা প্রকাশ করার মাধ্যম। ঘটনা খুব দ্রুত গ্রাহক পেতে চাই, তাই অনলাইনে যতবেশি দ্রুত নিউজ পাওয়া যাবে সেটাই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। পাহাড়ে জনপ্রিয় অনলাইনের দিক দিয়ে পাহাড়বার্তা অনেকটা এগিয়ে যাচ্ছে। পাহাড়বার্তা অনেক ভালো করেছে, আরো ভালো করার সুযোগ রয়েছে। হয়তো বা সরকার খুব দ্রুত অনলাইন পত্রিকাগুলোকে আইন ও নিয়মের মধ্যে আনবে। তখন অনলাইনের গুরুত্ব অনেক বাড়বে।

বুদ্ধজ্যোতি চাকমা
জেলা প্রতিনিধি
দৈনিক প্রথম আলো
বান্দরবান।

পাহাড়বার্তা অনেক ভালো ভালো নিউজ করে। পাহাড়বার্তা শুধু বান্দরবানের নই, সারাদেশে ছড়িয়ে গেছে। পাহাড়বার্তা থেকে পার্বত্য জেলা বান্দরবান, খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটির সংবাদসহ দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ মানুষ পেয়ে আসছে, যা সত্যি অনেক মনোমুগ্ধকর। তিনি আরো বলেন, আমি প্রতিদিন অন্তত ২ থেকে ৩বার পাহাড়বার্তার সংবাদ দেখে থাকি। পাহাড়বার্তা’র সংবাদের গতি আরো বাড়াতে হবে এবং বান্দরবানের স্বার্থে পাহাড়বার্তায় নারী সাংবাদিকদের যুক্ত করে নারীদেরও সাংবাদিকতায় আনতে ভূমিকা পালন করতে হবে।

আমিনুল ইসলাম বাচ্চু
জেলা প্রতিনিধি
ইউএনবি,বান্দরবান

পাহাড়বার্তা সংবাদ দেখে আমাদের ভালো লাগে কিন্তু সাংবাদিকদের আরো বেশি সক্রিয় হতে হবে। বান্দরবানের সাংবাদিকতা অন্য জেলা থেকে অনেকটা সহনশীল। এসময় তিনি আরো বলেন, পাহাড়ে সাংবাদিকতা অনেক কষ্টের,কারন এখানে সরকারী অফিসের কাছ থেকে কোন তথ্য পাওয়া না যাওয়ার কারনে সাংবাদিকতা অনেকটা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারছেনা। এসময় তিনি পাহাড়বার্তা’র সুদীর্ঘায়ু কামনা করেন।

মনিরুল ইসলাম মনু
সভাপতি
বান্দরবান প্রেসক্লাব।

পাহাড়বার্তা এখন অনেক জনপ্রিয় কিন্তু আমরা যখন সাংবাদিকতা করি তখন মোবাইল ফোন কি সেটা চিনতাম না কিন্ত আজ তথ্য প্রযুক্তি উন্নতির কারনে সংবাদ খুব দ্রুত পাওয়া যায়। পাহাড়বার্তাতে সব সময় স্থানীয় সব ধরনের সংবাদ পাওয়া যায়,যা আমাকে মুগ্ধ করে। তথ্য প্রযুক্তির কারনে আজ পাহাড়ের সব সংবাদ মানুষ খুব দ্রুত পাচ্ছে। আমি পাহাড়বার্তা সাফল্য কামনা করছি।

এ কে এম জাহাঙ্গীর
উপজেলা চেয়ারম্যান
বান্দরবান সদর উপজেলা।

অন্যদের মতো সাংবাদিকরা সমালোচনার বাহিরে না। সাংবাদিকদের নিরপেক্ষতা বজায় রেখে সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। এমন সংবাদ পরিবেশন করা যাবেনা, যা দেশের জন্য ক্ষতিকর। এখন পাঠকেরা সংবাদের সত্য- মিথ্যা যাচাই করে। তাই সঠিক তথ্য প্রকাশের মাধ্যমে পাহাড়বার্তার সাথে সাথে পাহাড়ের সাংবাদিকতা আরো এগিয়ে যাবে, এটায় কামনা করি আমি।

ক্যশৈহ্লা
চেয়ারম্যান
পার্বত্য জেলা পরিষদ
বান্দরবান।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।