বান্দরবানে শেষ হলো দুর্গাপূজা

বান্দরবান পুস্পাঞ্জলি প্রদান আর প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হলো সনাতন ধর্মাবলম্বীদরে শারদীয়া দুর্গাৎসবের।

আজ ২৬ অক্টোবর (সোমবার) সকাল ৯টায় বান্দরবান কেন্দ্রীয় দুর্গা মন্দিরে বিজয়া দশমীর পুষ্পাঞ্জলি গ্রহণের জন্য ভীড় জমায় অসংখ্য ভক্ত। এসময় পুষ্পাঞ্জলি প্রদান করেন বান্দরবান কেন্দ্রীয় মন্দিরের পুরোহিত রাহুল চক্রবর্তী।
পুষ্পাঞ্জলি প্রদান অুনষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়রে মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.রেজা সরোয়ার,বান্দরবান কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লক্ষীপদ দাশ,সাধারণ সম্পাদক সৌরভ দাশ শেখরসহ বান্দরবানের সনাতন ধর্মাবলম্বীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে দুর্গাপূজা সমাপ্ত করতে পারায় খুশি ভক্তরা। পুষ্পাঞ্জলি শেষে সনাতন ধর্মালম্বী নারীরা একে অপরের মুখে সিঁদুর ও তেল দিয়ে দেবীর বির্সজনের বার্তা জানায়, মন্ডপে মন্ডপে চলে ঢাক-ঢোল প্রতিযোগিতা। ধুপ আর মোমাবাতির আলোয় আলোকিত হয়ে ওঠে পুরো পূজামন্ডপ। এদিকে প্রশাসনের সহযোগিতায় আর সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে সুন্দরভাবে পূজা উদযাপন করতে পারায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে সংশ্লিষ্টরা।

বান্দরবান কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লক্ষীপদ দাশ বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা এবার পূজা উদযাপন করেছি এবং এবারের পূজা ব্যতিক্রম হলে ও আমরা ধর্মীয় রীতিনীতি পালন করেছি এবং মাকে সুন্দরভাবে বরণ ও বিদায় জানিয়েছি।

এদিকে পার্বত্যবাসীকে শারদীয়া দুর্গাপূজার দশমীর শুভেচ্ছা ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর। বান্দরবান কেন্দ্রীয় দুর্গা মন্দিরে পুস্পাঞ্জলি প্রদান শেষে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি পার্বত্যবাসীদের বিজয়া দশমীর শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা মেনে সনাতন ধর্মালম্বীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারের পুজা উদযাপন করেছে। দেশের এই ক্রান্তিকালে সনাতন ধর্মালম্বীরা সুন্দরভাবে পূজা করতে পারায় আমরা সবাই আনন্দিত।

বান্দরবান জেলার ৭টি উপজেলার ৩০টি পূজামন্ডপে এবার শারদীয়া দুর্গাপূজা হয়েছে আর বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আয়োজনে পূজা হয়েছে, দশমীতে কোন শোভাযাত্রা আর আনুষ্টানিকতা না রেখে প্রতিমা বির্সজন হচ্ছে ধর্মীয় রীতি নীতি মেনেই ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।