বান্দরবানে সিকদার গ্রুপের হোটেল নির্মাণ বন্ধের দাবি ছাত্র ইউনিয়নের

বান্দরবানের চিম্বুক-থানচি রোডে ম্রো সম্প্রদায়ের বসবাসের জায়গায় ‘ম্যারিয়ট হোটেল অ্যান্ড অ্যামিউজমেন্ট পার্ক’ নামে ফাইভ স্টার হোটেল তৈরির কাজ বন্ধ করার দাবি জানিয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন।

আজ সোমবার (৯ নভেম্বর) সংগঠনের দফতর সম্পাদক ফয়জুর মেহেদী পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল ও সাধারণ সম্পাদক অনিক রায় বলেন, বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচতারা হোটেল ও পর্যটনকেন্দ্র নির্মাণ কাজের ফলে সেখানকার আদিবাসী জনগোষ্ঠী বাস্তচ্যুত হয়ে পড়বে, তাদের জীবনযাত্রা ব্যাহত হবে। এর আগেও পর্যটনের নামে পাহাড়ি আদিবাসী জনগোষ্ঠীর জমি দখল হতে দেখেছি।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন এ ধরনের তৎপরতার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে এবং অবিলম্বে এই নির্মাণ কাজ বন্ধের দাবি জানাচ্ছে। পর্যটনের নামে জমি দখলের উন্নয়ন নয়, বরং ওই অঞ্চলের আদিবাসী জনগোষ্ঠীর শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে প্রাথমিক স্কুল মাধ্যমিক স্কুলসহ অন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা অত্যাবশকীয়।

নেতারা আরো বলেন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে উন্নয়ন ছাড়া শুধু হোটেল তৈরির উদ্যোগ জমি দখল ও ভূমিপুত্র ম্রো সম্প্রদায়কে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র বলেই মনে করে ছাত্র ইউনিয়ন। আদিবাসী জনগোষ্ঠীর জমি দখলের তৎপরতায় বিশৃঙ্খলা ও জানমালের ক্ষতি হলে তার দায়ভার সরকারকেই বহন করতে হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।