রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে দুই পক্ষের বন্দুকযুদ্ধ, জনমনে আতঙ্ক

রাঙামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাহাড়ী দুই আঞ্চলিক দলের জেএসএস (সন্তু) ও জেএসএস (এমএন লারমা) দলের মধ্যে পৌরসভার তালুকদার পাড়া এলাকায় দিন দুপুরে ব্যাপক গুলি বিনিময় হয়েছে। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে সাত শতাধিক রাউন্ড গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

এতে একজন গুলিবিদ্ধ খবর পাওয়া গেলেও কোন পক্ষ থেকে তা সত্যতা নিশ্চিত করেনি। গুলি বিনিময় চলাকালে মুসলিম ব্লক ঈমাম পাড়া জামে মসজিদে, হাজিপাড়া নুর টাওয়ার ও কাচালং বাজার আওয়ামী লীগ নেতা হাজি আবদুল শুক্কুর বাড়িতে গিয়ে গুলি পড়ে। এতে জনমনে ক্ষোভ ও আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পার্বত্য নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ন আহবায়ক ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাইযুম বলেন, তারা গোলাগুলি নিয়মিত করছে সেটা তাদের নিজস্ব ব্যাপার, কিন্তু মানুষের বাসায় গুলি এসে পড়ছে, আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।

তিনি আরো বলেন,অবিলম্বে প্রত্যাহারকৃত সেনা ক্যাম্প পুনরায় স্থাপনের জন্য সরকারের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

এদিকে, বাঘাইছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, দিন দুপুরে দুই দলের মধ্য ব্যাপক গুলি বিনিময় হয়েছে। তবে এতে কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।