নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আসছে মিয়ানমারের গরু

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত দিয়ে অবৈধ ভাবে আসছে মিয়ানমার থেকে গরুর চালান। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গরুর চালানসহ চোরাকারবাররিকে আটক করেছে পুলিশ।

৬ জুলাই সোমবার দিবাগত রাত দেড়টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ১৩টি মোটাতাজা গরু জব্দসহ এক চোরাকারবারিকে আটক করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশ। জব্দ ও আটককৃত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন।

তিনি জানান,মঙ্গলবার দিবাগত রাত অনুমানিক রাত ১টা ৩০ মিনিটের সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশের বিশেষ দল অভিযান চালিয়ে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে মিয়ানমার থেকে অবৈধ ভাবে আনা ১৩টি গরু জব্দসহ চোরাকারবারিকে আটক করা হয়েছে।

আটকৃত চোরাকারবারি নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের আশারতলী গ্রামের চেরারকূল এলাকার বশির আহাম্মদের ছেলে মো,কামাল মিয়া(৩৩)।

সূত্রে জানা যায়,এই আটককৃত আসামী ঈদ কোরবানকে সামনে রেখে এবং সীমান্তে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধ ভাবে গরুর চালান নিয়ে আসে মিয়ানমার থেকে। পুলিশ গোপন সংবাদ পেয়ে চেরারকূল এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন আকারের ১৩টি গরুসহ চোরাকারবারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জব্দকৃত ১৩টি গরুর অনুমানিক বাজার মূল্য ৮ লাখ ৮৫ হাজার হতে পারে বলে ধারনা করছেন পুলিশ।
আটককৃত চোরাকারবারি কামাল মিয়ার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করে বান্দরবান আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান পুলিশ।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।