রুমা’র ৪ ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছে কারা ?

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আ.লীগের নৌকার প্রতীকে মনোনয়ন নিয়ে কে হচ্ছে চেয়ারম্যান প্রার্থী? এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা শেষ নেই। এখন চা দোকান থেকে অফিস পাড়া পর্যন্ত সবখানে কোন ইউনিয়নে কাকে আ.লীগের দলীয় মনোনয়ন দিচ্ছে, এসব আলোচনা ঝড় ওঠেছে। তবে বান্দরবারে রুমা উপজেলায় ৪ টি ইউনিয়নে স্থানীয়দের সমর্থন ও চাহিদা বিবেচনায় এবার নতুন মুখ ও নতুন প্রজন্ম থেকে নৌকার প্রতীকে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন পেতে যাচ্ছে-এমন ইঙ্গিত দিলেন উপজেলা আ.লীগের নীতি নির্ধারকেরা।

সম্প্রতি নির্বাচন কমিশন তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন তপশীল ঘোষণা করে। সে ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২৮ নভেম্বর রুমা উপজেলায় চারটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কথা।

এদিকে রুমা উপজেলায় চারটি ইউনিয়নে দলীয় প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশিরা লবিং শুরু করে এবং চারটি ইউনিয়নে মোট ১৯জন চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেন। প্রতিটি ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থী থাকায় চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশিদের তালিকা জেলা আ.লীগের কাছে পাঠান উপজেলা আ.লীগ।

আওয়ামী লীগের নেতারা জানিয়েছেন রুমা উপজেলায় প্রাথমিক পর্যায়ে পাইন্দু ইউনিয়নে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশি চেয়ারম্যান প্রার্থী পাঁচজন ছিল। তারা হলেন-বর্তমান চেয়ারম্যান উহ্লামং মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি লালসাংতন বম, সাংগঠনিক সম্পাদক লালসাপ ত্লং বম, উপদেষ্টা মিমং মারমা ও পাইন্দু আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইলুকথাং বম।

রুমা সদর ইউনিয়নে মনোনয়ন প্রত্যাশি চেয়ারম্যান প্রার্থী এই চারজন হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শৈমং মারমা’সহ সভাপতি সাংপুই বম, যুগ্ম সম্পাদক ও ৩৫৩ নং কোলাদি মৌজার হেডম্যান শৈচিংথুই মারমা ও যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক জর্জ লালটানজুয়াল বম।

রেমাক্রী প্রাংসা ইউনিয়নের মনোনয়ন প্রত্যাশি চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিল ছয়জন। তারা হলেন-বর্তমান চেয়ারম্যান জিরা বম, রেমাক্রীপ্রাংসা ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেম্বার রমেশ ত্রিপুরা, যুবলীগের নেতা রেংনং ম্রো, উপজেলা আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক বরেন ত্রিপুরা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ইটেন ত্রিপুরা ও থিংদলতে পাড়ার বাসিন্দা বয়লিয়ানথাং বম লাতোয়ার।

গালেঙ্গা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শৈউসাই মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মেনরত ম্রো, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও গালেঙ্গা ইউপি সাবেক চেয়ারম্যান অংলাই ম্রো ও গালেঙ্গা আ.লীগের সহসভাপতি যুগেজ ত্রিপুরা।

আ.লীগের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, মনোনয়ন প্রত্যাশিদের নামের তালিকা পাঠিয়ে দেয়ার পর জেলা আ.লীগের নীতি নির্ধারকেরা সব প্রার্থীদের গত ১৮ অক্টোবর বান্দরবানে ডেকে পাঠান এবং তাদের স্বাক্ষাতকার গ্রহণ করেন।

আওয়ামী মীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান উহ্লাচিং মারমা ও সাধারণ সম্পদক- উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান থাংখামলিয়ান বম বলেছেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশি তাদের জীবন বৃতান্ত, দলের সাথে সম্পৃক্ততা কর্মকান্ড যাচাই-বাছাইয়ের করে তুলনামূলক গ্রহনযোগ্যতার বিবেচনায় চারটি ইউনিয়ন থেকে মোট নয়জনের নাম ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এই নয়জনের নাম জেলা থেকে গত মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছেন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক থাংখাম লিয়ান বম।

তিনি বলেন, নৌকা প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নাম আগামী ২৫ অক্টোবরের আগে জানা যাবে।

তবে স্থানীয় সাধারণ মানুষ ও নেতাকর্মীরা এ প্রজন্মের নতুন মুখ চায়। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে ও তাঁর আদর্শ লালন পালনে নতুন প্রজন্ম নতুন উদ্যোগ নিয়ে দল ও এলাকার সামগ্রিক উন্নয়ন করার সুযোগ দেয়ার দাবী তৃণমূল থেকে। তাই সেভাবে এগিয়েছেন বলে জানালেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

সূত্র মতে, নৌকা প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন দিতে যেসব চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নাম ঢাকায় পাঠানো হয়েছে, তারা হলেন- পাইন্দু ইউনিয়নের নতুন মুখ আ.লীগের উপদেষ্টা মিমং মারমা ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লালসাপত্রং বম। রুমা সদর ইউনিয়ন থেকে দুইবারে নির্বাচিত বর্তমান চেয়ারম্যান শৈমং মারমা ও যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক জর্জ লালটানজুয়াল বম এম.এ ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শৈচিংথুই মারমা ।

রেমাক্রীপ্রাংসা ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান জিরা বম ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমেশ ত্রিপুরা। গালেঙ্গা ইউনিয়ন থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান শৈউসাই মারমা ও গালেঙ্গা মৌজার হেডম্যান মেনরত ম্রো”র নাম ঢাকায় পাঠানো হয়েছে বলে আ. লীগের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে।

অন্যদিকে বিএনপি ও আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন জনসংহতি সমিতি এই দুই সংগঠনের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী দেয়ার ব্যাপারে তাদের উচ্চ পর্যায়ে নির্দেশনা না থাকায় কোনো প্রার্থীর নাম জানা যায়নি।

এদিকে রেমাক্রী প্রাসা ইউনিয়নে ত্রিপুরা সম্প্রদায় থেকে আ.লীগ মনোনয়ন না দিলে সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ইউজিন ত্রিপুরা মেস্তরাম স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদন্দ্বিতা করবেন বলে ইতোমধ্যে ঘোষণা করছেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।