সরকার শিক্ষার মান উন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে : বীর বাহাদুর

জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। এই সরকারের আমলে বাংলাদেশের সমগ্র এলাকায় শিক্ষার বিস্তারে বিভিন্ন কর্মসূচী নিয়ে শিক্ষার মান উন্নয়ন করা হচ্ছে। সরকার শিক্ষার মান উন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে । পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে বান্দরবান বিশ্ব বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন কালে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি একথা বলেন।

আজ শনিবার (৩১ আগস্ট) সকালে জেলা সদরের সুয়ালক ইউনিয়নে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে ১ শত একর বিশ্ব বিদ্যালয়ের নিজস্ব ভুমির উপর ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে বান্দরবান বিশ্ব বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন করা হয়।

এসময় পার্বত্য মন্ত্রী আরো বলেন, বান্দরবানকে শিক্ষানগরীতে রুপান্তর করার একধাপ এগিয়ে আমরা প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কাজ শুরু করলাম। আগামীতেও বান্দরবানের শিক্ষার মান উন্নয়ন ও অগ্রগতির লক্ষ্যে আমরা মেডিকেল কলেজ স্থাপনের লক্ষ্যে উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

এসময় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, শিক্ষক মন্ডলী, বান্দরবান বিশ্ব বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর এ.এফ ইমাম আলি, বান্দরবান বিশ্ব বিদ্যালয় এর রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ নুরুল আবছার, বিশ্ব বিদ্যালয়ের স্কুল অব বিজনেস স্টাডিজ এর ডীন প্রফেসর ডক্টর কাজী আহমদ নবী ও স্কুল অব সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজির ডীন প্রফেসর ডক্টর মোসলেহ উদ্দীন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের প্রকৌশলী আবু বিন মোঃ ইয়াছির আরাফাতসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইল্ট্রেনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, শিক্ষা ক্ষেত্রে বান্দরবানকে এগিয়ে নিতে গতবছর পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল। এ উদ্যোগে স্থানীয় কয়েকজন সমাজসেবক এগিয়ে আসেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায়। তাঁদের সমন্বয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় ‘বান্দরবান শিক্ষা ও উন্নয়ন ফাউন্ডেশন।’ এই উদ্যোগে পাশে এসে দাঁড়ায় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদও।

উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সম্পাদিত যৌথ চুক্তির মাধ্যমে বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বপ্নযাত্রা শুরু হয়। সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী বান্দরবান শিক্ষা ও উন্নয়ন ফাউন্ডেশন বিনিয়োগের ৭৫ শতাংশ এবং বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ ২৫ শতাংশ বহন করবে। সে অনুযায়ী জমি ক্রয় করা হয় এবং ক্যাম্পাস নির্মাণের কাজ শুরু করা হচ্ছে। চলতি বছরেই ৭ ফেব্রুয়ারী ৫ বিষয়ের উপর বান্দরবান বিশ্ব বিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।