লামায় ৫ কৃষকের বসতঘরে ডাকাতি : নগদ টাকাসহ মালামাল লুট

বান্দরবানের লামা উপজেলায় এক কৃষকের বসতঘরে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দিনগত গভীর রাতে উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ফুটেরঝিরি এলাকার জসিম উদ্দিনের বসতঘরে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা ঘরে রক্ষিত নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ৮০ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ডাকাত সদস্যদের হাতুড়ি পেটায় ৪ জন আহত হয়েছেন। গত ১৮ নভেম্বর দিবাগত রাতেও ইউনিয়নের পেতাইন্যার ঝিরির ৪টি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছেন। গত এক সপ্তাহে একের পর এক বসতঘরে ডাকাতির ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

সূত্র জানায়, মুখোশ পরিহিত ১৩-১৪ জনের একদল ডাকাত সোমবার দিনগত গভীর রাতে ফুটেরঝিরির জসিম উদ্দিনের বসতঘরে ঢুকে ঘরে রক্ষিত নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। এ সময় ঘরের মালিক জসিম উদ্দিনের স্ত্রী, ছেলে, মেয়ে ও পুত্রবধূ বাঁধা দিলে ডাকাতরা তাদেরকে হাতুড়ি দ্বারা আঘাত করে। পরে খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। এর আগে পেতেইন্যার ঝিরির নুরুল ইসলাম হায়দারের বাগান বাড়ি, ফরিদুল আলমের বসতঘর, ছৈয়দ আলম ও মনছুর আলমের বসতঘরে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

এক সপ্তাহে ৫ বসতঘরে ডাকাতির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাকের হোসেন মজুমদার বলেন, গত ১৮ নভেম্বর রাতে ৪ বসতঘরে ডাকাতির ঘটনা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় উপস্থাপন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. আমিনুল হক বলেন, ডাকাতি ঘটনার অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।