চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কারা পাচ্ছেন মনোনয়ন !

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রান্তে থাকায় আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি ঘোষিত হতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের তফসিল।

তবে তফসিল ঘোষণার পূর্বেই বড় দুই দল আওয়ামী লীগ-বিএনপির মেয়র প্রার্থী নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে মাঠ পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের আলোচনা ও আগ্রহের শেষ নেই।

চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের মেয়র পদে মনোনয়নে আলোচনায় রয়েছে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। অপরদিকে বিএনপির মনোনয়নে আলোচনায় আছেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার। তবে বিএনপি চসিক নির্বাচনে অংশ নেয়া-না নেয়ার ব্যাপারে এখনো দোটানায় রয়েছে বলে জানা গেছে।

চসিক নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিষয়ে মাঠ পর্যায়ে অনুসন্ধান এবং নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে চসিকের বর্তমান মেয়র এবং চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন এবারও মনোনয়ন প্রত্যাশী।

একই সঙ্গে আলোচনায় রয়েছেন প্রয়াত সাবেক তিন তিনবারের মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর পুত্র শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। নওফেল সরাসরি নির্বাচনের আগ্রহ নিজে থেকে প্রকাশ না করলেও দলীয়ভাবে মনোনয়ন দিলে নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গতঃ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগে প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ও আ জ ম নাছির উদ্দিনের দুটি পৃথক বলয় রয়েছে। এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুর পর সেই প্রভাব এখন পুত্র ব্যারিস্টার নওফেল এবং আ জ ম নাছির উদ্দিনকে ঘিরে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে চট্টগ্রাম মহানগরীর প্রতিটি থানা ওয়ার্ডে দুই গ্রুপের সমর্থকগোষ্ঠী কার্যকর। এই ক্ষেত্রে মেয়র নির্বাচনে আ জ ম নাছির উদ্দিন নাকি ব্যারিস্টার নওফেল মনোনয়ন পাবেন এই নিয়ে দুই পক্ষেই জোড় আলোচনা চলছে।

এছাড়াও সদ্য সাবেক চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ সালাম এবং পিএইচপি গ্রুপের চেয়ারম্যান সদ্য একুশে পদকপ্রাপ্ত সুফী মিজানুর রহমানও মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশার তালিকায় আলোচনায় রয়েছেন। তবে দলীয়ভাবে এই মনোনয়নের একক সিদ্ধান্ত দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই প্রদান করবেন বলে সিনিয়র নেতৃবৃন্দ জানান।

এদিকে, বিএনপির মেয়র নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা বা না করার বিষয়টি এখনো অনিশ্চিত হলেও তাদের মেয়র প্রার্থী নিয়ে ব্যাপক আলোচনায় আছেন মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহদাত হোসেন এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার। বিএনপি নির্বাচনে এলে এই দু’জনের যে কেউ মনোনয়ন পেতে পারেন বলে নেতা-কর্মীরা আশা প্রকাশ করেছেন। তবে একই সঙ্গে বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীমের নামও আলোচনায় রয়েছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।